KFC, কে এফ সি, KFC এর প্রতিষ্ঠাতা

KFC এর প্রতিষ্ঠাতা কলনেল স্যান্ডার্স | একটি বিস্ময় জাগানিয়া সফলতার গল্প

আজকের গল্পটি এমন একটি সফলতার গল্প যা আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি পুরোপুরি চেঞ্জ করে দিবে । সফলতা নিয়ে আমাদের প্রচলিত ধ্যান ধারণার ভিতকে নাড়িয়ে দিয়ে যাবে । একজন মানুষকে কখন আপনি সফল বলবেন ? জীবনের কোন সময়টিকে আপনি সাফল্য লাভের বেস্ট সময় বলে মনে করেন ?

গল্পটি কলনেল স্যান্ডার্সকে নিয়ে, যিনি বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান KFC এর প্রতিষ্ঠাতা ।

১৬ বছর বয়সে তিনি স্কুল থেকে বিতাড়িত হন

কে এফ সির গল্প
kfc

চলুন এক নজরে দেখে নিই কলনেল সান্ডারস এর সংক্ষিপ্ত জীবন প্রবাহ ।

>  ৫ বছর বয়সে তার বাবা মারা যান ।

>  ১৬ বছর বয়সে তিনি স্কুল থেকে বিতাড়িত হন ।

আর বয়স ১৭ তে তিনি পর্যায়ক্রমে চারটি চাকরি হারান ।

> মাত্র ১৮ বছর বয়সে তিনি বিয়ে করেন, সেসময় তিনি রেলরোড কন্টাক্টর হিসেবে কাজ করতেন । যখন তার বয়স ১৯, তখন তিনি একটি কন্যা শিশুর বাবা হন ।

> ২০ বছর বয়সেই তার স্ত্রী তাদের একমাত্র মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে তাকে ছেড়ে চলে যায় ।

> ২২ বছর বয়সে তিনি সেনাবাহিনীতে চাকরি নেন । একই সাথে তিনি ‘ল’ স্কুলে এপ্লাই করেন এবং বারবার সেখান থেকে রিজেক্ট হতে থাকেন । ইতোমধ্যে তিনি তার চাকরিও হারান ।

৮৭ ডলার ধার করে একটি কড়াই ও তার চিকেন রেসিপির উপকরণগুলো কেনেন 

 kfc|একটি সফলতার গল্প
kfc

> এরপর তিনি ইনস্যুরেন্স কোম্পানিতে  সেলসম্যান হিসেবে কাজ শুরু করেন । তার বিশৃঙ্খল ক্যারিয়ার জীবনে আরও একটি ব্যর্থতা যোগ হয় । তারপর তিনি একটি ছোট ক্যাফেতে বাবুর্চির কাজ করবেন বলে সিদ্ধান্ত নিলেন ।

৬৫ বছর বয়সে তিনি সেখান থেকে অবসর গ্রহণ করেন ।

অবসর নেওয়ার প্রথম দিন সরকারীভাবে ১০৫ ডলারের একটি চেক হাতে পান । এটি যেন যেন বৃদ্ধ বয়সে গালে চড় মারার মত অবস্থা। তিনি মারাত্মক অসহায় হয়ে পরলেন।

মাসিক মাত্র ১০৫ ডলার দিয়ে কীভাবে তিনি গোটা মাস সারভাইভ করবেন? তিনি ভেবে কূলকিনারা খুঁজে পান না । একজন চূড়ান্ত ব্যর্থ মানুষের পরিণতি তার ।

তিনি আত্মহত্যা করার সিদ্ধান্ত নেন ।

kfc|একটি সফলতার গল্প
kfc

একটি গাছের নিচে বসে তার সুইসাইডাল নোট লিখছিলেন ।

লিখতে লিখতে হঠাৎ করে তার মনে হয়, তিনি কি কি করতে পারতেন, যেগুলো করেননি?

সুযোগ ছিল কি তার জীবনকে অন্যভাবে সাজাবার?

তিনি এটা অন্তত উপলব্ধি করতে পারলেন, তার অনেক কিছু করার ছিল । একটা ব্যাপারে নিশ্চিত হলেন যে, এমন কিছু তিনি করতে পারেন, যেটা অন্য কেউ কখনো করতে পারবে না । বলতে গেলে তিনি সেই কাজটা অন্য সবার চেয়ে সবচেয়ে ভাল করতে পারতেন ।

সেটা ছিল রান্নার কাজ !

বর্তমানে ১২৩ টি দেশে ২০,০০০ এর বেশি লোকেশনে KFC এর বিস্তার

kfc|একটি সফলতার গল্প
kfc

এমন চিকেন রেসিপি তিনি জানেন তার স্বাদ এখনো কেউ পায়নি । তিনি ৮৭ ডলার ধার করে একটি কড়াই ও তার চিকেন রেসিপির উপকরণগুলো কেনেন।

একপর্যায়ে তিনি তার সেই অদ্বিতীয় চিকেন ফ্রাইড রেসিপিটি তৈরি করলেন । প্রতিবেশীদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে তার তৈরি খাবারটি বিক্রি করার চেষ্টা করেন । একই সাথে রেসিপিটি বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে চালানোর চেষ্টা করতে থাকেন ।

এবারও তিনি ব্যর্থতার বৃত্তে ঘুরপাক খাচ্ছেন, ১০০৯ বার তিনি বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে তার রেসিপি চালানোর চেষ্টা করেছিলেন । অবশেষে ১০১০ তম রেস্টুরেন্ট টি তার ডাকে সাড়া দেয় ।

KFC এর জন্ম হল ।

আপনি নিজেকে বিশ্বাস না করলে কেউ আপনার উপরে বিশ্বাস রাখবে না

৮৮ বছর বয়সে কলনেল স্যান্ডার্স কয়েক বিলিয়ন ডলারের মালিক হয়ে উঠেন । আর তার প্রতিষ্ঠান KFC হয়ে উঠে পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম খাবারের সম্রাজ্য ।

বর্তমানে ১২৩ টি দেশে ২০,০০০ এর বেশি লোকেশনে KFC এর বিস্তার ।

 kfc|একটি সফলতার গল্প
kfc

 

Moral of the story….

kfc|একটি সফলতার গল্প
kfc

সফল হওয়ার সব উপকরন-ই আপনার আছে ।

কখখোনো হাল ছাড়বেন না । আপনার স্বপ্ন দেখার সময় ফুরিয়ে যায়নি এখনো । বুনো স্বপ্নগুলোর পেছনে ছুটতে থাকুন, এখনি । হ্যাঁ, এখনই ।

সবসময় নিজের উপর বিশ্বাস রাখুন । আপনি নিজেকে বিশ্বাস না করলে কেউ আপনার উপরে বিশ্বাস রাখবে না। ব্যাপার না, আপনি কতবার হেরে যাচ্ছেন ।

ভিন্ন কিছু করুন এবং অন্যদের দেখিয়ে দিন ।

আপনি পারেন । আপনি পারবেন ।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top